রাষ্ট্রটি একটি আইন শৃঙ্খলাবিহীন ভঙ্গুর রাষ্ট্রে পরিনত হয়েছে : আবু সালেহ মোঃ তাহের

30

পুলিশ হেফাজতে বর্বর নির্যাতনে নিহত রায়হান এর হত্যার প্রতিবাদে ও খুনীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে উই আর ন্যাশনালিস্ট এর উদ্যোগে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়…

সংগঠনের সভাপতি সিলেট মহানগর ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক আবু সালেহ মোঃ তাহের এর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান পাবেলের পরিচালনায় এসময় বক্তব্য রাখেন জেলা যুবদলের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য বেলায়েত হোসেন মোহন, মহানগর যুবদলের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য এমদাদুল হক স্বপন, জেলা যুবদলের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য মাসুক আহমেদ, মহানগর ছাত্রদলের সাবেক সহ সাধারণ সম্পাদক বর্তমান স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা কামরান হোসেন হেলাল, মনিরুল ইসলাম মনির, জেলা বিএনপির সাবেক সদস্য হাসান মঈনুদ্দিন আহমেদ মইনুল।

বক্তারা বলেন, গত পরশু রাতে রায়হান নামক ৩৪ বছর বয়সী তরতাজা যুবককে পুলিশ ধরে নিয়ে গিয়ে বর্বর নির্যাতনে হত্যা করে, রায়হানের তিন মাস বয়সী শিশুটি জন্মের সাথে সাথেই এতিম হয়ে গেলো, সন্তান হারা মা, অকালে বিধবা হয়ে যাওয়া স্ত্রী আর এই অবুঝ শিশুর কান্নায় আজ সিলেটের আকাশ-বাতাস ভারি হয়ে উঠছে।
একটির পর একটি ঘটনা চোখে আংগুল দিয়ে দেখিয়ে দিচ্ছে এদেশে মানুষের জীবনের মূল্য কতটুকু।
ক্ষমতার পিপাসা মিটাতে এই দখলদার ও তাদের পূর্বসুরীরা বারবার রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করেছে, এতে আজ বাংলাদেশ নামের আমাদের গর্বের রাষ্
এতদিন সরকারের সাথে ভিন্নমত পোষণকারীদের দমনের জন্য নির্যাতনের ঘটনা গুলোতে প্রকারান্তরে ইনডেমনিটি দিয়ে পুলিশকে এতটাই অসহিষ্ণু ও আগ্রাসী করা হয়েছে যে এখন শুধু সরকারের সাথে ভিন্নমত পোষণকারীরাই নয়, পুলিশের হিংস্রতার ও সহিংসতার শিকার হতে হচ্ছে সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সিনহা থেকে সাধারণ নিরীহ রায়হান আহমদকেও। অবস্থা দেখে মন হয় যেন, এই দেশের মালিক শাসক গোষ্ঠী, আর আমরা তাদের দয়ায় বেঁচে থাকা অধিকারহীন কিছু জীবজন্তু মাত্র।
এ অবস্থা চলতে দেয়া যায় না।
অবিলম্বে রায়হান হত্যার সাথে জড়িত সকল পুলিশকে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।
অন্যথায় সিলেটের জনগণকে সাথে নিয়ে বৃহত্তর আন্দোলনের মাধ্যমে জনতার আদালতে খুনীদের বিচার করতে আমরা বাধ্য হবো।

অন্যান্য দের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, এম সোয়েব আহমেদ, আব্দুল হাফিজ রানা, মহানগর ছাত্রদলের সহ সভাপতি আব্দুল হাসিব, আলী আকবর রাজন।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন,মোশাররফ হোসেইন, মাহিদুল হক শাহীন, সরকারি কলেজ ছাত্রদলের সাবেক আহবায়ক আনোয়ার হোসেন সুজন মহানগর ছাত্রদলের সাবেক আইন বিষয়ক সম্পাদক ইমাম উদ্দিন রুজেল ল’ কলেজ ছাত্রদলের সিনিয়র সহ সভাপতি মোহাম্মদ আলী, পান্না ঘোষ, মকবুল হোসেন, সদর উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক মিজানুর রহমান রুমন, সাদ্দাম হোসেন, আরিস আহমদ, ইমন আহমদ, জাবেদ আহমদ, মহানগর ছাত্রদলের সাবেক সদস্য এইচ এম কামাল হোসেন, ৮ নং ওয়ার্ড ছাত্রদলের আহবায়ক শেখ আরমান আহমদ রিয়ান, এমাদ আহমদ, ইফতেখার আহমদ সানি, জৈন্তাপুর উপজেলা ছাত্রদলের যুগ্ম আহবায়ক ইকবাল আহমেদ, মাসুদুর রহমান মাছুম, জুনায়েদ আহমদ রাফি, দীপঙ্কর ঘোষ, খালেদ আহমদ, সাব্বির আহমদ, রাজিব আহমদ, মকবুল চৌধুরী, রুবেল আহমদ, মোঃআব্দুল হান্নান, ইকবাল আহমদ, তাসনিম, ইমরান প্রমূখ।