বগুড়ায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্যানেল নিয়োগের দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান

182

বগুড়ায় প্রাথমিকে প্যানেল নিয়োগের দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান

গোলাম রব্বানী শিপন, বিশেষ প্রতিনিধি,
সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্যানেল শিক্ষক নিয়োগের দাবিতে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে ২০১৪ স্থগিত(২০১৮) সালে অনুষ্ঠিত সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগে প্যানেল বাস্তবায়ন বগুড়া জেলা কমিটি জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে।
সোমবার দুপুর ২টায় ২০১৪ স্থগিত(২০১৮) সালে অনুষ্ঠিত সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগে প্যানেল বাস্তবায়ন বগুড়া জেলা কমিটির পক্ষ থেকে এ স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। জেলা প্রশাসকের পক্ষে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(রাজস্ব) আব্দুল মালেক তাদের স্মারকলিপি গ্রহণ করেন।এ সময় উপস্থিত ছিলেন ২০১৪ স্থগিত(২০১৮) সালে অনুষ্ঠিত সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগে প্যানেল বাস্তবায়ন বগুড়া জেলা কমিটির আহবায়ক রাশেদুল ইসলাম,যুগ্ম আহবায়ক মোছাঃ আইনুন নাহার,শফিউল আলম,সোহেল রানা প্রমুখ।
রাশেদুল ইসলাম বলেন, করোনা মহমারির মধ্যে মানুষের জীবনের নিরাপত্তা নষ্ট করে নতুন করে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি না দিয়ে সহকারী শিক্ষকের শূন্যপদ পূরণে দীর্ঘসূত্রিতা দূর করতে ২০১৪ সালে স্থগিত ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের প্যানেলের মাধ্যমে নিয়োগ দেওয়া হোক। কারণ এদের চাকরির বয়স সবারই শেষ হয়ে গেছে চার বছর নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিতের কারণে। সবাই প্যানেলের অপেক্ষায় এখন কর্মহীন বেকার জীবন-যাপন করছেন। বর্তমানে শূন্য পদের সংখ্যা প্রায় ৬০ হাজার। প্রধানমন্ত্রী প্রত্যেককে চাকরি দিতে চান, অথচ মন্ত্রণালয় বেকার বানিয়ে রেখেছে উত্তীর্ণ প্রার্থীদের।গত ২৬ আগস্ট অনুমিত হিসাব সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভায় প্রাথমিক শিক্ষকের শূন্য পদে নিয়োগে দীর্ঘসূত্রিতা দূর করতে প্যানেল পদ্ধতি চালুর সুপারিশ করা হয়। তাই প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকের শূন্যপদ পূরণে দ্রুত সংসদীয় কমিটির সুপারিশ বাস্তবায়নের দাবি জানিচ্ছি।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালে সার্কুলার হওয়া প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে আবেদনকারী প্রার্থী ছিল ১৩ লক্ষ। যে স্থগিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয় ২০১৮ সালে। লিখিত পরীক্ষায় মেধায় উত্তীর্ণ হয় ২৯৫৫৫ জন। উত্তীর্ণের হার ২.৩%। যেখান থেকে সে সময় নিয়োগ দেওয়া হয়েছিল ৯৭৬৭ জন শিক্ষককে। তারপর থেকেই ২০১৪ (স্থগিত) ২০১৮ অনুষ্ঠিত সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরীক্ষার প্যানেল প্রত্যাশী ব্যানারে প্যানেলের দাবীতে নানা কর্মসূচী পালন করে আসছেন তারা।