বগুড়ার মহাস্থান প্রেসক্লাবের সভাপতি মিটু, সম্পাদক এস আই সুমন ও কোষাধ্যক্ষ নুরনবী রহমান নির্বাচিত

57

বগুড়ার মহাস্থান প্রেসক্লাবের সভাপতি মিটু, সম্পাদক এস আই সুমন
ও কোষাধ্যক্ষ নুরনবী রহমান নির্বাচিত

এস আই সুমন,স্টাফ রিপোর্টারঃ দীর্ঘ দিনের জটিলতা একই নামে বগুড়ার মহাস্থানে ২টি প্রেসক্লাব একত্রিতো করোনের লক্ষ্যে সোমবার (২৭জুলাই) বিভক্ত ২টি প্রেসক্লাবের সদস্যের চিঠির মাধ্যমে মহাস্থান ডাকবাংলোয় ডেকে এক আলোচনার সভার আয়োজন করা হয়।
শিবগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফিরোজ আহমেদ রিজুর প্রচেষ্টায় সর্বলোচনা উপস্থাপনার মধ্যদিয়ে নিজেদের দ্বিধা-দ্বন্দ ও সকল ভেদাভেদ ভুলে সর্বসম্মতিক্রমে ২টি প্রেসক্লাবের সদস্যেদের নিয়ে সমঝোতার ভিত্তিতে সংঘটিত নতুন নেতৃত্ব গঠন করা হয়।
১ বছর মেয়াদে নব গঠিত প্রেসক্লাবের সভাপতি হলেন, আনিছুর রহমান মিটু (দৈনিক প্রভাতের আলো) সাধারন সম্পাদক এস আই সুমন (দৈনিক বগুড়া) ও কোষাধ্যক্ষ নুরনবী রহমান (একুশে সংবাদ)। সভায় মহাস্থান প্রেসক্লাবের সাংবাদিকেরা নিজেদের ভিতর অতীতের কিছু ভুল-ভ্রান্তি তুলে ধরে সামনে প্রেস ক্লাবের নতুন নেতৃত্বদানকারী ও প্রেসক্লাবের সংশ্লিষ্ট সিনিয়র সাংবাদিকদের নির্দেশনা নিয়েই প্রেসক্লাবের উন্নয়নের অগ্রযাত্রা। তারা মনে করেন নতুন রূপে মহাস্থান প্রেসক্লাব হবে গনমানুষের আস্থার প্রতীক। রায়নগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শফি’র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি উপজেলা চেয়ারম্যান ফিরোজ আহমেদ রিজু বলেন, অতীত সভ্যতার লীলাভূমি ঐতিহাসিক মহাস্থানগড়ে একই নামকরন ২টি প্রেসক্লাব বিভিন্ন এলাকায় সমালোচনার কারন ও সাধারন মানুষ অনাস্থা প্রকাশ করেছে। যা এটি একটি নিন্দুনীয় বিষয়। তাই জাতীর বিবেক সাংবাদিকেরা সবাই মিলেমিশে একই পরিবার মনে করে আপনাদের সংগঠনকে ভালকাজে দাঁড় করবেন এটিই আমাদের প্রত্যাশা। এসময় উপস্থিত ছিলেন, সিনিয়র সাংবাদিক আব্দুল বাছেদ, মাহফুজ মন্ডল, সাইদুর রহমান সাজু, শমশের নুর খোকন, ইকবাল হোসেন, আব্দুর রহিম সাজু, সোহেল রানা, রহেদুল ইসলাম, ওবায়দুর রহমান, গোলাম রব্বানী শিপন, কেএম আমিনুল ইসলাম, আব্দুল বারী, সেলিম উদ্দিন, সাফায়েত সজল, গোলজার রহমান, তাহেরা জামান লিপি, আব্দুল হান্নান টগর, সোহাগ মাহবুব, আকাশ ইসলাম, রাহাতুল আলম রাহাদ, কনক দেব, এম দুলাল, মুনসুর রহমান আকাশ, রিপন, রবিউল ইসলাম রবি, রাশেদুর রহমান রানা, জাহিদুল ইসলাম জাহিদ, আব্দুল বাকিবিল্লাহ, আতাউর রহমান, রাকিব হাসান, আজিজুল হক বিপুল প্রমুখ।